প্রেমিক যুগলকে আটকে রেখে মারপিটের অভিযোগে মামলা আসামি ৪

যশোর : যশোর শহরের রায়পাড়ার একটি বাড়িতে জেলার চৌগাছা উপজেলার চারাগাড়ি গ্রামের প্রেমিক যুগলকে আটকে রেখে মারপিট-হুমকি এবং টাকা ও সোনার গহনা ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে কোতয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। চারাগাড়ী গ্রামের মতিয়ার সরদারের ছেলে এসএম ফারুক আহমেদ আকাশ চারজনের নামে মামলাটি করেন।
আসামিরা হচ্ছে, চাঁচড়া রায়পাড়ার নুর হোসেনের মেয়ে বুলবুলি (২৮), কাজী আফজাল হোসেনের ছেলে আকাশ (২০), আইয়ুব আলীর ছেলে মেহেদী (২০) এবং কাজী তারেকের ছেলে তানভীর (১৯)।
এজাহারে ফারুক আহমেদ আকাশ জানান, তিনি গত ১৬ সেপ্টম্বর দুপুর দুইটার দিকে তার এক বন্ধবীকে সাথে নিয়ে চাঁচড়া রায়পাড়ায় যান। সেখানে গেলে আসামি বুলবুলির সাথে তার দেখা হয়। বুলিবুলি তার খালাতো বোনের ভাড়া বাড়ি রায়পাড়ার সেলিম মাষ্টারের বাড়ির নিচতলায় নিয়ে যায়। বুলবুলি সেখানে তাদের রেখে চলে যায়। কিছুক্ষণপর বুলবুলি অন্যান্য আসামিকে সাথে নিয়ে ওই বাড়িতে যায়। এবং বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে নগদ ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। টাকা না দিতে চাইলে তারা তাকে মারপিট করে। পরে তার কাছে থাকা দুইটি মোবাইল ফোসসেট, নগদ ৫ হাজার টাকা, একটি সোনার ও দুইটি তামার আংটি কেড়ে নেয়। পরে তাদের ছেড়ে দিলে তার বন্ধবী বাড়িতে চলে যায়। তিনিও সেখান থেকে বের হয়ে যশোর জেনারেল হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নেন এবং মামলা করেন।