রোনালদোর হ্যাট্রিকে বড় হার লুক্সেমবার্গের

ঢাকা : নিজেদের মাঠে প্রথম দেখায় পর্তুগালের বিপক্ষে কিছুটা লড়াই করে লুক্সেমবার্গ। তবে প্রতিপক্ষের মাঠে মোটেও সেই সুযোগ পায়নি দলটা। ফলাফল, রোনালদো-ফের্নান্দোদের কাছে বড় হারের স্বাদ পাওয়া।

পর্তুগালের স্তাদিও আলগ্রেভে মঙ্গলবার রাতে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে লুক্সেমবার্গকে একরকম উড়িয়ে দিয়েছে পর্তুগিজরা। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর হ্যাটট্রিকে ৫-০ গোলে জিতেছে।

এই ম্যাচে পর্তুগাল কোচ সান্তোস দলে আনেন আটটি পরিবর্তন। কাতারের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচটিতে যারা খেলার সুযোগ পাননি তাদের দিয়েই মূলত দল সাজানো হয়।

এরপরও ম্যাচের ১৭ মিনিটের ভেতর ৩-০ গোলে এগিয়ে যায় পর্তুগিজরা। ম্যাচের ৮ ও ১৩ মিনিটে পেনাল্টি পেয়ে যায় স্বাগতিক দল। সফল স্পট কিকে দলকে এগিয়ে নেন রোনালদো।

৭ মিনিটের সময় সেবাস্তিন থিল ফাউল করে বসেন বের্নার্দো সিলভাকে। ১২ মিনিটের মাথায় ডি-বক্সে রোনালদোকেই ফাউল করেন লুক্সেমবার্গ গোলরক্ষক এন্থনি মরিস।

২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যাবার ৪ মিনিট পর নিচু শটে লুক্সেমবার্গের জাল খুঁজে নেন ফের্নান্দেস। ৩-০ গোলে এগিয়ে বিরতিতে যায় পর্তুগাল।

আরেকটা হ্যাটট্রিকের সামনে দাঁড়িয়ে রোনালদোর অপেক্ষা করতে হয় ম্যাচের শেষ পর্যন্ত। তার আগে বেশ কয়েকটি সুযোগ মিস করে পর্তুগিজরা।

৪৯ মিনিটে দারুণ একটা সুযোগ মিস করেন রোনালদো। রোনালদোর নেয়া শট পোস্ট ঘেঁষে চলে যায়। ৬২তম মিনিটে নুনো মেন্দেসের ক্রস থেকে লম্বা শট নেন ফের্নান্দেস তবে, ঠিক রাখতে পারেননি লক্ষ্য।

৬৯ মিনিটের মাথায় ডি বক্সের ভেতর রোনালদোর বাইসাইকেল শট ঠেকিয়ে দেন মরিস। শেষ পর্যন্ত ফের্নান্দেসের কর্নার থেকে আসা বল চমৎকার হেডে জাল খুঁজে নেন জোয়াও পালিনিয়া।

৪-০ ব্যবধানে এগিয়ে থাকা দলকে আরও একটা গোল এনে দেন রোনালদো। ম্যাচের প্রায় শেষদিকে ৮৭ মিনিটের মাথায় রুবেন নেভেসের দুর্দান্ত ক্রস হেডে দুর্দান্ত গোল করেন পর্তুগীজ অধিনায়ক। এটি তার দশম হ্যাটট্রিক দেশের জার্সিতে।

লুক্সেমবার্গকে হারিয়ে ইউরোপীয় অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ‘এ’ গ্রুপে ৬ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে রয়েছে পর্তুগাল।