ইউপি নির্বাচনে বিতর্কিতদের ব্যাপারে ব্যবস্থা নিচ্ছে আ.লীগ

ঢাকা : দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বিতর্কিতদের বিষয়ে আওয়ামী লীগ ব্যবস্থা নিচ্ছে বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ বুধবার (১৩ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে যাত্রাবাড়ী-ডেমরা মহাসড়ক চারলেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

কাদের বলেন, ইউপি নির্বাচনে বিতর্কিত কোনও ব্যক্তিকে মনোনয়ন দেওয়ার অভিযোগ পেলে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে, প্রয়োজনে সংশোধন করা হবে। আমি এ বিষয়ে অলরেডি বলেছি, বিতর্কিত কোনো নাম এলে সঙ্গে সঙ্গে খতিয়ে দেখতে।

ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে দলের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আগেই রেজুলেশন প্রস্তুত করে রাখতে হবে, যাতে নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে তা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে প্রেরণ করা সম্ভব হয়। আমরা লক্ষ্য করেছি, শেষ মুহূর্তে তাড়াহুড়া করে রেজুলেশন প্রস্তুতির কারণে অনেক জায়গায় সাংগঠনিক বিধি অনুসরণ করা হয়নি। এ ছাড়া শেষ মুহূর্তে একসঙ্গে সব রেজুলেশন নিয়ে কাজ করা কঠিন।

এদিকে নির্বাচনকে ভয় পায় বলেই বিএনপি প্রকাশ্য নির্বাচনে অংশ নেয় না বলে মন্তব্য করেছেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, পালানোর রাজনীতি আওয়ামী লীগ নয়, বিএনপি করে। তাদের পলায়নপর রাজনীতি গণতন্ত্রের জন্য হুমকি। নির্বাচন নিয়ে বিএনপির নীতি একটি আত্মঘাতী নীতি, যা কর্মী-সমর্থক ও ভোটারদের সঙ্গে প্রবঞ্চনা ছাড়া আর কিছুই নয়। এ হঠকারিতার মাসুল তারা এখন দিচ্ছে, ভবিষ্যতেও দিতে হবে।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপে দেশের ৮৪৮ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ভোট গ্রহণ হবে। তফসিল অনুযায়ী, রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে চেয়ারম্যান, সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত নারী সদস্যপদে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ আগামী ১৭ অক্টোবর। মনোনয়নপত্র বাছাই ২০ অক্টোবর ও প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৬ অক্টোবর।