ম্যাচে বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নেয়া কে এই রেফারি

ঢাকা : শেষ মুহূর্তে ফাইনাল স্বপ্ন ভঙ্গ হলো বাংলাদেশের। সাফ চ্যাম্পিয়নিশপে গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে বেঙ্গল টাইগারদের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে নেপাল। অঘোষিত সেমিফাইনালে বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিয়ে আলোচনায় এখন রেফারি।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) মালেতে মালদ্বীপ জাতীয় স্টেডিয়ামে ফাইনাল নিশ্চিতের লক্ষ্যে নামে দুদল।

খেলার ৯ মিনিটে জামাল ভূঁইয়ার ফ্রি-কিক থেকে বাংলাদেশকে হেডের মাধ্যমে লিড এনে দেন সুমন রেজা।

১৫ মিনিটে নেপালকে সমতায় ফেরানোর সুযোগ নষ্ট করেন রোহিত চাঁদ। দ্বিতীয়ার্ধে আরো মরিয়া হয়ে ওঠে গোর্খালিসরা।

৭৯ মিনিটে রাকিব হোসেনের ব্যাকপাসে হ্যান্ডবল করে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন বাংলাদেশের গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো।

৮৭ মিনিটে পেনাল্টি পায় নেপাল। উজবেকিস্তানের রেফারি আখরল রিসকুল্লায়েভের এই সিদ্ধান্তটি নিয়েই মাঠে দেখা যায় উত্তেজনা। ঠাণ্ডা মাথায় বল জালে জড়িয়ে নেপালকে সমতায় ফেরান অঞ্জন বিস্তা।

বাকি সময়ে চেষ্টা করেও আর গোলের দেখা না পাওয়ায় বিদায় নিতে হয় বাংলাদেশকে। এতে ২০০৫ সালের পর প্রথমবারের মতো দক্ষিণ এশিয়ার সর্বোচ্চ এই টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলার সুযোগ নষ্ট হলো।

ম্যাচ শেষ হতে বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা রেফারিকে ঘিরে ধরেন। নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গেও তর্ক করতে দেখা যায় লাল-সবুজদের। শেষ পর্যন্ত নিরাপত্তারক্ষীরা ম্যাচ অফিসিয়ালদের মাঠ থেকে বের করে আনেন।

ওয়ার্ল্ড ফুটবল ডট নেট ওয়েবসাইটে দেখা যাচ্ছে, ২০১৯ সালে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক ম্যাচের দায়িত্ব পালন করেন আখরল রিসকুল্লায়েভ। এর আগে মোট চারটি ম্যাচ পরিচালনার অভিজ্ঞতা রয়েছে ৩৬ বছর বয়সী এই রেফারির।